মার্কিন ড্রোন হামলায় সিরিয়ায় নিহত ১৭

সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে তুর্কি সীমান্তবর্তী এলাকায় মার্কিন বাহিনী ড্রোন হামলা চালিয়েছে এবং এতে অন্তত ১৭ ব্যক্তি নিহত হয়েছে। উগ্র আল-কায়েদা গোষ্ঠীর সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত একটি সংগঠনের কয়েকজন নেতাকে হত্যার জন্য ওই ড্রোন হামলা চালানো হয়েছে বলে আমেরিকা দাবি করছে।

মধ্যপ্রাচ্যে নিযুক্ত মার্কিন সন্ত্রাসী বাহিনী সেন্টকমের মুখপাত্র মেজর বেত রিঅর্ডান এক বিবৃতিতে দাবি করেন, উগ্রবাদী গোষ্ঠী নেতারা ইদলিভ শহরের কাছে একটি জায়গায় গোপন বৈঠক করছিল এবং এ খবর পেয়ে মার্কিন বাহিনী সেখানে হামলা চালায়। তিনি বলেন, আল-কায়েদা সংশ্লিষ্ট সব নেতাকে হত্যা করার কারণে উগ্রবাদী সংগঠন বিশ্বব্যাপী মার্কিন স্বার্থ, মার্কিন জনগণ এবং মার্কিন মিত্রদের ওপর হামলা চালানোর জন্য শক্তি অর্জন করতে পারবে না।

তবে মেজর রিঅর্ডান এ কথা পরিষ্কার করেন নি যে, ওই ড্রোন হামলায় আল-কায়েদা সংশ্লিষ্ট কয়জন উগ্রবাদী নেতা নিহত হয়েছে। ব্রিটেনভিত্তিক কথিত মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে অন্তত পাঁচজন বেসামরিক ব্যক্তি রয়েছে। সংস্থাটি বলেছে, আল-কায়েদা সংশ্লিষ্ট উগ্রবাদী নেতারা রাতের খাবার খাওয়ার সময় সেখানে আমেরিকা হামলা চালায় এবং নিহত ১৭ জনের মধ্যে ১১ জন উগ্রবাদী নেতা রয়েছে।–পার্স টুডে

শেয়ার / প্রিন্ট করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *