ফ্লোরিডায় আগাম ভোট দিলেন ট্রাম্প

আরএমপি নিউজ: ফ্লোরিডায় আগাম ভোট দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। শনিবার ফ্লোরিডার ওয়েস্ট পাম বিচে তার মার এ লাগো স্টেইটের কাছে একটি পাঠাগারে আগাম ভোট দেন ট্রাম্প। খবর: আলজাজিরা

গত বছরের সেপ্টেম্বরে ট্রাম্প তার স্থায়ী ঠিকানা ও ভোটার নিবন্ধন পরিবর্তন করে নিউ ইয়র্ক থেকে ফ্লোরিডায় নিয়ে এসেছিলেন। হোয়াইট হাউসে ফেরার টিকেট পেতে হলে ট্রাম্পকে কথিত ‘ব্যাটলগ্রাউন্ড’ বা ‘দোদুল্যমান’ রাজ্য ফ্লোরিডায় অবশ্যই জয় পেতে হবে।  নিজের ভোট দেওয়ার পর ট্রাম্প সাংবাদিকদের বলেন, “আমি ট্রাম্প নামের এক ব্যক্তিকে ভোট দিয়েছি।”

এর মাধ্যমে ট্রাম্প ৩ নভেম্বরের নির্বাচনের আগে আগাম ভোট দেওয়া যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় ৫ কোটি ৪২ লাখ নাগরিকের সঙ্গে যোগ দিলেন। করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে যুক্তরাষ্ট্রে এবার আগাম ভোট পড়ার হার রেকর্ড গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে।

ফ্লোরিডায় ভোট দেওয়ার পর ট্রাম্প দোদুল্যমান রাজ্যের তালিকায় থাকা নর্থ ক্যারোলাইনা, ওহাইও ও উইসকনসিনে প্রচারণা চালাতে গিয়েছেন। এসব রাজ্যে তিনটি জনসভায় যোগ দিবেন তিনি।

ট্রাম্পের ডেমোক্র্যাট প্রতিন্দ্বন্দ্বী জো বাইডেন ও তার স্ত্রী জিল বাইডেনও এদিন আরেক দোদুল্যমান রাজ্য পেনসেলভেইনিয়ায় দুটি প্রচারণা অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। এদিন সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বাইডেনের পক্ষে ফ্লোরিডায় প্রচারণা চালাবেন।

নির্বাচনের ১০ দিন আগেই প্রায় সাড়ে ৫ কোটি ভোটার আগাম ভোট দিয়ে দিয়েছেন। আগাম ভোট পড়ার এই গতি অব্যাহত থাকলে এক শতাব্দিরও বেশি সময় পর এবার সর্বোচ্চ ভোট পড়তে পারে বলে জানাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের ইলেকশন প্রজেক্টের দেওয়া তথ্য।

ভোট পড়ার এই হার ট্রাম্প ও বাইডেনের মধ্যে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার চিত্র মেলে ধরার পাশাপাশি নির্বাচনের দিন জনাকীর্ণ ভোট কেন্দ্র নিয়ে লোকজনের মধ্যে বিদ্যমান উদ্বেগও প্রকাশ করেছে। স্পষ্টতই করোনাভাইরাস মহামারীর এই সময়ে ভোট কেন্দ্রের ভিড় এড়াতে চাইছেন তারা।

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া এই মহামারীতে যুক্তরাষ্ট্রে ২ লাখ ২৪ হাজার লোকের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে শুক্রবার দেশটিতে একদিনে রেকর্ড ৮৪ হাজারেরও বেশি নতুন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে।

জাতীয় পর্যায়ের জরিপগুলোতে দেখা গেছে, বাইডেন সুস্পষ্ট ব্যবধানে ট্রাম্পের চেয়ে এগিয়ে আছেন, কিন্তু যেসব রাজ্যের ফলাফলগুলোর ওপর প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জয়-পরাজয় নির্ভর করছে সেই ব্যাটলগ্রাউন্ডগুলোতে দুই প্রার্থীর ব্যবধান সামান্য।

শেয়ার / প্রিন্ট করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *