এ সব মানলে ওষুধ ছাড়াই ঘুম আসবে সহজে

শেয়ার / প্রিন্ট করুনঃ

আরএমপি নিউজঃ জীবনযাত্রার পরিবর্তন অনেকের জীবন থেকেই সুখের ঘুম কেড়ে নিয়েছে। ওয়ার্ল্ড হেল্‌থ অরগানাইজেশন (হু)-এর মতে, প্রতি দশ জনে ছ’জন মানুষকেই কোনও না কোনও সময় ঘুমের ওষুধ নিতে হয়েছে।

কিন্তু জানেন কি, ওষুধ ছাড়াও সাধের ঘুমকে সহজেই নামিয়ে আনা যায় চোখের পাতায়। তার জন্য অবলম্বন করতে হবে কিছু নিয়ম। জানেন সে সব নিয়ম কী?

কথায় বলে সঠিক বালিশ না কি ভাল ঘুমের মন্ত্র। বালিশ বানান এমন ভাবে যাতে ঘাড় বালিশের উপর সোজাসুজি থাকতে পারে, কাত না হয়ে যায়। কাঁধকে সাপোর্ট দিতে পারে এমন বালিশ বানান। বালিশে কার্পাস তুলো হলে ভাল হয়। একান্তই না পারলে ফোমের ভাল বালিশ বানান। তবে স্পঞ্জের বালিশ ব্যবহার না করাই ভাল। তোষকের ক্ষেত্রেও স্পঞ্জ না ব্যবহার করে নারকেল ছোবড়ার গদি বা ভাল মানের তুলোর গদি ব্যবহার করুন।

অনেকেই সামান্যতম আলোতেও  ঘুমোতে পারেন না। এ দিকে রাতে সম্পূর্ণ অন্ধকার ঘরে ঘুমোনোও খুব একটা সুবিধার নয়। নাইট ল্যাম্পের মৃদু আলোও ঘুমোতে অসুবিধা হলে চোখে রাখুন আই মাস্ক।

ঘুমের আগে চিনি ছাড়া গ্রিন টি খান। চা মস্তিষ্ককে সক্রিয় করে, তাই অনেকেরই ধারণা ঘুমনোর আগে চা-কফি থেকে দূরে থাকাই ভাল। সাধারণ চায়ের ক্ষেত্রে এই নিয়ম খাটলেও  চিনি ছাড়া গ্রিন টি শরীরকে টক্সিনমুক্ত করে ঘুম আনতে সাহায্য করে।

সুগন্ধ ঘুম আনে। তাই ঘুমের আগে ঘরে স্প্রে করুন ‘স্লিপ স্প্রে’। নানা ফুলের গন্ধ মেলানো এমন স্প্রে যে কোনও অনলাইন শপ বা নামী দোকানে সহজেই পাবেন।

ঘুম আনতে হাতের কাছে রাখুন হালকা কোনও গানের সিডি বা গল্পের বই। পড়ার নেশা থাকলে বই পড়তে পড়তে এক সময় ঘুম আসবে। নতুবা সিডি প্লেয়ারে চালিয়ে রাখুন হালকা কোনও মিউজিক। যা শরীর ও মস্তিষ্ককে সহজেই শান্ত করে ঘুম পাড়াবে।

ঠান্ডা লাগার প্রবণতা না থাকলে ঘুমের আগে সেরে ফেলুন গরম জলের হালকা স্নান। ঘুম এতে ভাল হতে বাধ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *