চীনে নতুন ভাইরাস আবিষ্কার গবেষকদের

শেয়ার / প্রিন্ট করুনঃ

এক নতুন ধরনের সোয়াইন ফ্লু-র ভাইরাস আবিষ্কার করলেন চীনের গবেষকরা। নতুন এই ভাইরাসটিরও মহামারি সৃষ্টির ক্ষমতা রয়েছে। মার্কিন সায়েন্স জার্নাল পিএনএস-এ সোমবার এমনই একটি রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে।

সোয়াইন ফ্লু-র নতুন এই ভাইরাসটির নাম জি৪। এটি এইচ১এন১ ভাইরাসেরই একটি গোত্র বলে উল্লেখ করা হয়েছে ওই সায়েন্স জার্নালে। চীনের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন-এর দাবি, এই ভাইরাসটিও খুব সংক্রামক।

২০১১-১৮ সালে মধ্যে গবেষকরা ৩০ হাজার শুয়োরের লালারস সংগ্রহ করে সেগুলো পরীক্ষার পর ১৭৯ ধরনের সোয়াইন ফ্লু ভাইরাস চিহ্নিত করেছেন। এই ভাইরাসগুলোর মধ্যে বেশির ভাগই নতুন ধরনের। এমনটাই দাবি করেছেন চীনা গবেষকরা। ভাইরাসগুলো পরীক্ষার পর দেখা গিয়েছে, মৌসুমী জ্বরে মানবদেহে যে প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে ওঠে, সেই প্রতিরোধ ক্ষমতা জি৪ ভাইরাসকে ঠেকানোর পক্ষে যথেষ্ট নয়।

বিজ্ঞানীদের দাবি, পশু থেকে মানবদেহে এই ভাইরাসের সংক্রমণের প্রমাণ মিললেও, মানুষ থেকে মানুষের মধ্যে সংক্রমণের প্রমাণ এখনও মেলেনি। তবে মানুষ থেকে মানুষের মধ্যে এর সংক্রমণ হয় কি না, হলেও কতটা মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে, তা নিয়েই ইতিমধ্যেই গবেষণা শুরু হয়ে গিয়েছে।

২০০৯-এ এইচ১এন১ ভাইরাসের সংক্রমণে মহামারির সৃষ্টি হয়েছিল। নতুন এই ভাইরাস নিয়ে তাই বিজ্ঞানীরা আগে থেকেই সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। কোভিড-১৯ এর আবির্ভাব চীন থেকেই হয়েছিল। তার পর তা সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। মহামারি সৃষ্টি করেছে এই ভাইরাস। গোটা বিশ্বে ইতিমধ্যেই এক কোটিরও বেশি মানুষ সংক্রমিত হয়েছেন, মৃত্যু হয়েছে ৫ লক্ষেরও বেশি মানুষের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *