করোনা মোকাবিলায় ৫০ লক্ষ টাকা অর্থসাহায্য পাক ক্রিকেটারদের

শেয়ার / প্রিন্ট করুনঃ

বাংলাদেশের পর পাকিস্তান। করোনা মোকাবিলায় অর্থসাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন সেদেশের ক্রিকেটাররা। করোনার আপদকালীন ফান্ডে ৫০ লক্ষ টাকা দান করলেন পিসিবি’র চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটাররা। এছাড়াও বোর্ডের কর্তা-ব্যক্তি ও সিনিয়র লেভেলের কর্মকর্তারা তাদের একদিনের পারিশ্রমিক করোনার আপদকালীন ফান্ডে দান করার কথা জানিয়েছেন।

পিসিবি’র চেয়ারম্যান এহসান মানি জানিয়েছেন, ‘পিসিবি এই সকল অর্থ সংগ্রহ করে সরকারের করোনা ভাইরাসের তহবিলে দান করবে।’ চেয়ারম্যান আরও জানিয়েছেন কঠিন সময়ে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড বারংবার সরকারের পাশে দাঁড়িয়েছে, করোনা সংকটও তার ব্যতিক্রম নয়।

পাকিস্তানে মারণ কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা ১০০০ ছাড়িয়েছে আগেই। দেশজুড়ে চলছে স্বাস্থ্য-সংকট। এমন সময় করাচির ন্যাশনাল স্টেডিয়ামকে প্যারামেডিক্যাল স্টাফদের কাজের ক্ষেত্র হিসেবে খুলে দেওয়া হয়েছে। এপ্রসঙ্গে মানি জানিয়েছেন, মারণ ভাইরাসের কারণে ক্রিকেটিং শিডিউলে এমনিতেই দারুণভাবে ব্যাঘাত ঘটেছে। তাই কঠিন সময়ে সরকারের পাশে থেকে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

উল্লেখ্য, বুধবার বিসিবি’র দেওয়া একমাসের পারিশ্রমিকের অর্ধেক অঙ্ক এবার দেশের করোনা তহবিলে দান করার কথা ঘোষণা করেন বাংলাদেশ ক্রিকেটাররা। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড জানিয়েছে করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশ ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক থেকে সর্বমোট ৩১ লক্ষ টাকা (বাংলাদেশি মুদ্রায়) দান করা হবে করোনা তহবিলে। তামিম, মুশফিকুরদের এমন মানবিক পদক্ষেপ মন কেড়েছে দেশের ক্রিকেট অনুরাগীদের।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলির মধ্যে পাকিস্তানেও উদ্বেগ বাড়াচ্ছে কোভিড-১৯। এমন সময় মারণ লড়াইয়ের বিরুদ্ধে পথে নামলেন দেশের প্রাক্তন তারকা ব্যাটসম্যান শাহিদ আফ্রিদি। রাস্তায় নেমে দুঃস্থ-গরিব মানুষের মধ্যে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম বিলিয়ে দেওয়ার ছবি সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে ইন্টারনেটে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *