বাংলাদেশ রেলওয়ে, রাজশাহী অফিসের প্রধান ফটকের উত্তরে পাকা রাস্তার উপর সানোয়ার হোসেন রাসেল(৩০) হত্যা মামলায় গ্রেপতার ০৭ ।

শেয়ার / প্রিন্ট করুনঃ

গত ইং-১৩/১১/২০১৯ তারিখ বেলা ০১.৪৫ ঘটিকায় চন্দ্রিমা থানাধীন মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি স্টেডিয়াম মার্কেটের ভাংড়ি পট্টি মেসার্স মজিবুর রহমান ঠিকাদার এর চেম্বারের সামনে ও সরঞ্জাম নিয়ন্ত্রক/পশ্চিম, অফিস চত্বর, বাংলাদেশ রেলওয়ে, রাজশাহী অফিসের প্রধান ফটকের উত্তরে পাকা রাস্তার উপর মোঃ সুজন হোসেন(৩০) এর নেতৃত্বে ভিকটিম মোঃ সানোয়ার হোসেন রাসেল(৩০) এবং তার সংগীদের উপর চাকু, কিরিত, চাপাতি দ্বারা উপর্যুপরি হামলার ঘটনায় ভিকটিম রাসেল সহ তার সাথে থাকা অন্যান্যরা গুরুতর আহত হয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সানোয়ার হোসেন রাসেল (৩০) মৃত্যু বরণ করে এবং অন্যান্যরা চিকিৎসাধীন আছে। উক্ত ঘটনায় মহানগরীর চন্দ্রিমা থানায় ১৭ জন আসামীর নাম উল্লেখ করে এবং ৭/৮ জন অজ্ঞাতনামা আসামীদের বিরুদ্ধে ভিকটিমের বড় ভাই মোঃ মনোয়ার হোসেন রনি বাদী হয়ে এজাহার দায়ের করলে একটি মামলা রুজু করা হয়। চন্দ্রিমা থানা পুলিশ মহানগরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে এজাহার নামীয় আসামী রাব্বি(২৫), পিতা-মোঃ বুলবুল হোসেন, সাং-শিরোইল কলোনী ৩নং গলি, মোঃ বাপ্পি(১৯), পিতা-মোঃ জয়নাল, সাং-শিরোইল কলোনী ১নং গলি, মোঃ শাহিন(২৪), পিতা-নুর মোহাম্মদ সরদার, সাং-শিরোইল কলোনী, ২নং গলি, মোঃ শুভ(২১), পিতা-মানিক, সাং-শিরোইল কলোনী, ১নং গলি, চঞ্চল(১৯), পিতা-মোঃ বাবু ইসলাম, সাং-শিরোইল কলোনী, ৪নং গলি, মোঃ কালাম উদ্দিন(১৯), পিতা-মোঃ জালাল উদ্দিন, সাং-শিরোইল কলোনী ১নং গলি, মোঃ মোজাহিদুল ইসলাম অভ্র(১৯), পিতা-আবুল কালাম চৌধুরী, সাং-শিরোইল কলোনী ১নং গলি, সর্ব থানা-চন্দ্রিমা, মহানগর রাজশাহীদের গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যহত আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *