নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ও সচেতনতামূলক সভায় আরএমপি’র পুলিশ কমিশনার

গত ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ খ্রিস্টাব্দে রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানাধীন চামারপাড়া আইএসটি’র আইডি মাঠে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ও সচেতনতামূলক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আরএমপি’র পুলিশ কমিশনার জনাব মোঃ শফিকুল ইসলাম বিপিএম।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে সম্মানিত পুলিশ কমিশনার বলেন যে, নারীর যদি ক্ষমতায়ন না করা যায় তাহলে দেশের উন্নয়ন হবে না। বাংলাদেশ সরকার নারীর অগ্রগতির জন্য নানা পদক্ষেপ নিয়েছে। তিনি বলেন যে, আদিকাল থেকেই নারী নির্যাতন চলছে, বতমানেও হচ্ছে। তবে বর্তমানে নারী নির্যাতনের প্রকার বা ধরণ বদলেছে। দেশ এগিয়ে চলেছে। শিশু সন্তার লাভের আশায় অনেকে পরিবার নারীর উপর নির্যাতন চালাচ্ছে। মনে রাখতে হবে, মেয়ে ও ছেলের মধ্যে শারীরিক বিভেদ ছাড়া আর অন্য কিছু নাই। এটা শিশুর ছোটবেলা থেকে শেখানোর চেষ্টা করতে হবে। ছেলে-মেয়েকে সমান অধিকার দিতে হবে। ছেলে-মেয়ে উভয়কে সমান শিক্ষা দিতে হবে। পরিবার থেকে শিশুর মানসিকতা গঠিত হয়।
সম্মানিত পুলিশ কমিশনার আরোও বলেন যে, বাংলাদেশে বৌ-শাশুড়ির মনস্তাত্বিক সমস্যা মেয়েরা নির্যাতনের অন্যতম প্রধান কারণ। নারীদের শারীরিকভাবে দুর্বল ভাবা হলেও মেধা ও যোগ্যতার মাপনীতে তাঁরা পুরুষের চেয়ে কোনো অংশে কম নয়।
পুলিশ কমিশনার উপস্থিত কলেজ ছাত্রীদের উদ্দেশ্য করে বলেন যে, সঙ্গী নির্বাচন একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। ফেইসবুক বা ইন্টারনেট ব্যবহারের ক্ষেত্রে সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের থানাগুলোতে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ সেল তৈরী করা হয়েছে যা ২৪ ঘন্টার জন্য নারীদের উন্মুক্ত ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। আবার রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ কর্তৃক পরিচালিত ভিকটিম সার্পোট সেন্টারের মাধ্যমে সহিংসতার শিকার নারী, শিশু ও ভিকটিমদের বিভিন্ন সমস্যা নিষ্পত্তি করা হয়। তাছাড়া থাকা ও খাওয়াসহ রয়েছে আইন সহায়তা করার ব্যবস্থা।
তাছাড়া পুলিশ কমিশনার মহোদয় বলেন যে, যৌতুক দেয়া ও নেয়া অপরাধ। এটি দেবেন না, নেবেনও না।
নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ও সচেতনতামূলক সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজশাহী সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর জনাব সৈয়দা নিলুফার ফেরদৌস, ডিসি (পূর্ব) জনাব মোঃ আমির জাফর, ব্লাস্ট, রাজশাহী’র কো-অরডিনেটর জনাব আব্দুস সামাদ, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, রাজশাহী’র জনাব কল্পনা রায়। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন জাতীয় মহিলা আইনজীবি সমিতি, রাজশাহী’র বিভাগীয় প্রধান এ্যাডঃ দিল সেতারা চুনি। তাছাড়া অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্ববধান করেন আরএমপি’র এডিসি জনাব শিরিন আক্তার জাহান।

শেয়ার / প্রিন্ট করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *