মাদক ব্যবসা পরিত্যাগকারীদের পুনর্বাসন কার্যক্রমে আরএমপি’র পুলিশ কমিশনার

16195436_742596532573585_3305397418815778116_nগত ২১ জানুয়ারি ২০১৭ খ্রিস্টাব্দে রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানার উদ্যোগে “মাদক ব্যবসা পরিত্যাগকারীদের পুনর্বাসন ও আত্মসমর্পন” অনুষ্ঠানেরআয়োজন করা হয়। বোয়ালিয়া থানার খরবোনা এলাকার পর এটি মাদক পরিত্যাগকারীদের দ্বিতীয় পুনর্বাসন অনুষ্ঠান।

রাজপাড়া থানা ও থানা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরাম এর উদ্যোগে মাদক ব্যবসা পরিত্যাগকারীদের পুনর্বাসন ও চোরাকারবারী-মাদক পাচারকারীদের আত্মসমর্পন অনুষ্ঠান মহানগরীর রাজপাড়া থানাধীন গুড়িপাড়া গোলজারবাগ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে (১০০০/১২০০ জন) অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে চোরাকারবারী-মাদক পাচারকারীর ৫২ জন সদস্য প্রধান অতিথি মহোদয়ের নিকট আত্মসমর্পন করেন।
সমাবেশে প্রধান অতিথি আরএমপি’র সম্মানিত পুলিশ কমিশনার জনাব মোঃ শফিকুল ইসলাম বিপিএম বলেন, গুড়িপাড়া তথা রাজপাড়া থানাকে মাদকমুক্ত করা হবে। এ থানা এলাকায় ইতিপূর্বে যারা আত্মসর্মপন করেছিল তাদের পূর্নবাসনের জন্য দুইটি সেলাই মেশিন, একটি রিক্সা-ভ্যান, একটি ঢোপ দোকান ঘর ও নগদ অর্থ প্রদানসহ ভবিষ্যতে আরো পূর্নবাসনের প্রতিশ্রুতি দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি। আত্মসর্মপনকারীরা তাদের অপরাধ জীবন হতে ফিরে এসে আলোর পথে চলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি আরএমপি’র সম্মানিত পুলিশ কমিশনার জনাব মোঃ শফিকুল ইসলাম বিপিএম এর আহবানে রাজশাহী চেম্বার অফ কমার্স, সিটি কর্পোরেশন, বারিন্দ মেডিকেল কলেজের পরিচালক, ঐতিহ্যবাহী রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষসহ অনেকেই আর্থিক সহায়তার হাত বাড়িয়ে এগিয়ে আসেন।

সম্মানিত অতিথিরা মাদকের বিরুদ্ধে বক্তব্য প্রদান করে আরএমপি’র এমন মহতী ও ব্যতিক্রমী উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

প্রধান অতিথি বলেন, আমি খুবই আনন্দিত ও ভালো লাগছে যে, এমন ভালো পুনর্বাসন কাজে মহানগরবাসীর অভূতপূর্ব সাড়া পেয়েছি, রাজশাহীর মানুষ ভালো তা ভালো কাজের পাশে থেকেই প্রমাণ করলেন।
যাদের পুনর্বাসন করা হলো তাদের জন্য অভিনন্দন। আর কোন অপরাধ না করলে তাদের পুলিশ কোন হয়রানি করবে না। যাদের বিরুদ্ধে মামলা আছে যথাযথ আইনি প্রক্রিয়া চলমান থাকবে।
ভালো পথে ফিরে আসার পর যারা আবার অপরাধে জড়াবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, ছেলে মেয়েদের অস্বাভাবিক পরিবর্তন দৃষ্টিগোচর হলেই শিক্ষক, অভিভাবক বা প্রতিবেশী হিসেবে বিষয়টি নিয়ে ভাববেন প্রয়োজনে পুলিশের সাথে শেয়ার করবেন।

আপনার সন্তানের কথা চিন্তা করেও মাদকমুক্ত করার আন্দোলনে আপনি নিজেও সক্রিয় অংশীদার হউন। তবেই সত্যিকারের গ্রিনসিটি হিসেবে রাজশাহী নগরী গড়ে উঠবে। ধন্যবাদ, সবাই ভালো থাকুন।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আরএমপি’র সম্মানিত পুলিশ কমিশনার জনাব মোঃ শফিকুল ইসলাম, বিপিএম, বিশেষ অতিথি হিসেবে ডিসি (সঃদ) জনাব তানভীর হায়দার চৌধুরী, ডিসি ( পিওএম) জনাব তোফায়েল আহমেদ, বারিন্দ মেডিকেল কলেজের পরিচালক জনাব শামসুদ্দিন, মোঃ আজিজুল আলম বেন্টু (সভাপতি, কমিউনিটি পুলিশিং রাজপাড়া থানা শাখা) সহ উধ্বর্তন কর্মকর্তাগণ, সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় জন প্রতিনিধিরা ও বিভিন্ন শ্রেণির জনগণের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি ছিলো চোখে পড়ার মতো।

ডিসি (পশ্চিম) জনাব এ কে এম নাহিদুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন রাজপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আমান উল্লাহ খান।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন এডিসি (বোয়ালিয়া) জনাব মোঃ ইবনে মিজান, এডিসি(পূর্ব) জনাব আব্দুর রশিদ, এডিসি (প্রসিকিউশন) জনাব নুরুল ইসলাম, এসি জনাব শামীমা সুমি, আরএমপি’র মুখপাত্র সিঃ এসি(সঃদঃ) জনাব ইফতেখায়ের আলম, সহ অন্যান্য কর্মকর্তাগণ।
সৌজন্যেঃ ডিসি (সিটিএসবি)

শেয়ার / প্রিন্ট করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *