রামচন্দ্রপুরের মাদক ব্যবসা পরিত্যাগকারীদের পুনর্বাসন করলেন আরএমপি’র পুলিশ কমিশনার

Rehabibilitation

গত ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ বিকাল ৩.০০ ঘটিকায় রাজশাহী মহানগরের বোয়ালিয়া মডেল থানাধীন রামচন্দ্রপুর খরবোনায় মাদক ব্যবসা পরিত্যাগকারীদের পুনর্বাসন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের সম্মানিত পুলিশ কমিশনার জনাব মোঃ শফিকুল ইসলাম বিপিএম।
এ ছাড়া বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার সরদার তমিজউদ্দীন আহমেদ, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র জনাব মোঃ নিজাম-উল-আজিম, বারিন্দ মেডিকেল কলেজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব মোঃ শামসুদ্দিন, রাজশাহী চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাট্রিজ এর সভাপতি জনাব মোঃ মনিরুজ্জামান এবং রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মহাঃ হবিবুর রহমান।
রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের ডিসি (পশ্চিম) জনাব এ কে এম নাহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বোয়ালিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহাদাত হোসেন খান।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশ কমিশনার বলেন যে, মাদক কেনা, বেচা, খাওয়া সবই ফৌজদারী ভাষায় আমলযোগ্য অপরাধ। অপরাধ হচ্ছে, মামলা হচ্ছে। মামলার পরিসংখ্যান বৃদ্ধি পাচ্ছে, সাজাও হচ্ছে। কিন্ত সামাজিক ব্যাধি কমছে না। তাই একটু ব্যতিক্রমী পন্থায় কাজ করে সচেতনতা সৃষ্টি ও উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে যুবসমাজে মূল্যবোধ সৃষ্টি কমিয়ে দিতে পারে মাদকের অপরাধ। অল্প সময়ের পরিসরে তা প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছে আরএমপি।
তিনি আরোও বলেন, ছেলে-মেয়েদের অস্বাভাবিক পরিবর্তন দৃষ্টিগোচর হলেই শিক্ষক, অভিভাবক বা প্রতিবেশী হিসেবে বিষয়টি নিয়ে ভাববেন। প্রয়োজনে পুলিশের সাথে শেয়ার করবেন। আমাদের এতো ভালোবাসার দেশকে সন্ত্রাস বা জঙ্গিবাদের হাতে তুলে দিতে পারিনা। অব্যাহত উন্নয়নের ধারা মাদকাসক্তি বা জঙ্গীবাদ দ্বারা আক্রান্ত বা বাধাগ্রস্ত হতে দিতে পারিনা।
রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ কর্তৃক আয়োজিত গত ১৭ ডিসেম্বর ২০১৬ খিস্টাব্দের সচেতনতামূলক ও উদ্বুদ্ধকরণ সভার পরবর্তী ধাপ হিসেবে আলোর পথে ফেরাদের মধ্যে যারা অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল তাদের পুনর্বাসন করতে ভ্যান, সেলাই মেশিন, ও নগদ টাকা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি আরএমপি’র সম্মানিত পুলিশ কমিশনার জনাব মোঃ শফিকুল ইসলাম বিপিএম মহোদয়ের আহবানে রাজশাহী চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাট্রিজ, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন, বারিন্দ মেডিকেল কলেজের পরিচালক, ঐতিহ্যবাহী রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষসহ অনেকেই আর্থিক সহায়তার হাত বাড়িয়ে এগিয়ে আসেন। এসএ টিভি ও বারিন্দ মেডিকেল কলেজ আলোর পথে ফেরাদের সন্তানের চাকরি দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।
অন্যান্যদের মধ্যে উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাট্রিজের পরিচালক জনাব মোঃ মাসুদুর রহমান, রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের ডিসি(পিওএম) জনাব তোফায়েল আহাম্মদ, ডিসি(পূর্ব) মোঃ আমির জাফর, বিশেষ পুলিশ সুপার (সিটিএসবি) জনাব আবু আহাম্মদ আল মামুন, এডিসি(সদর) জনাব শিরিন আক্তার জাহান, এডিসি (পশ্চিম) জনাব মোঃ ইবনে মিজান, এডিসি(পূর্ব) জনাব আব্দুর রশিদ, সিনিয়র এসি(ট্রেনিং) জনাব মোঃ রফিকুল আলম, আরএমপি’র মুখপাত্র সিঃ এসি(সঃদঃ) জনাব ইফতেখায়ের আলমসহ অন্যান্য কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া মহানগরীর ২৪ নং ওয়ার্ডের কমিশনার জনাব মোঃ আরমান আলী, ২২ নং ওয়ার্ডের কমিশনার জনাব মোঃ আব্দুল হামিদ সরকার টেকোন, সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় জন প্রতিনিধিরা, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, রাজশাহী কলেজ স্টুডেন্টস কমিউনিটি পুলিশিংয়ের ছাত্র-ছাত্রী ও বিভিন্ন শ্রেণির জনগণের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি ছিলো চোখে পড়ার মতো।

শেয়ার / প্রিন্ট করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *